প্রেমের কবিতা বাংলা, প্রেমের কবিতা সমগ্র Bangla kobita sms

Find the perfect bangla kobita sms to expresses to her your unconditional love. We provide the best romantic প্রেমের ছন্দ কবিতা. when you need something প্রেমের কবিতা সমগ্র, প্রেমের কবিতা বাংলা pdf, প্রেমের কবিতা রবি ঠাকুরের, ছবি সহ ডাউনলোড. romantic bangla poem collection in bengali for girlfriend are in great demand.

Send your woman a beautiful sad bangla romantic premer kobita by rabindranath tagore that is straight from the heart. Bangla kobita sms

bangla kobita sms

“…সন্ধেবেলা ঝগড়া হবে, হবে দুই বিছানা আলাদা
হপ্তা হপ্তা কথা বন্ধ মধ্যরাতে আচমকা মিলন
পাগলী, তোমার সঙ্গে ব্রক্ষ্মচারী জীবন কাটাব
তোমার সঙ্গে পাগলী, আদম ইভ কাটাব জীবন।..”
-পাগলী তোমার সঙ্গে(জয় গোস্বামী)

“সপ্ন আমার”

পথের পানে চেয়ে থাকি
মনের মাঝে তোমায় দেখি,

কবে তুমি আসবে কাছে
আমায় নেবে আপন করে,

মিটবে আমার মনের আশা
শেষ হবে সব প্রতীক্ষা,

বাধব আমরা সুখের ঘর
স্বপ্ন দিযে তোমার আমার,
দিন কাটাবো স্বর্গ সুখে
একে অন্যকে ভালোবেসে..

*****নতুন বছর****

পুরনো দিনের কথা
কি ভাবে ভুলা যায়,
পুরনো দিনের সপ্ন কী আর
নতুন করে গাঁথা যায়।

আমরা হচ্ছি অভিযাএিক
নতুন সপ্ন নিয়ে বেঁচে থাকব,
পুরনো দিনের ইতিহাস
ভুলে গিয়ে
নতুন বছরে পা দিব ।

নতুন বছরকে দিব উপহার
সঠিক পথকে করবো সাথী,
পুরনো দিনের কথা ভুলে গিয়ে
নতুন বছরকে আলোকিত করি।

মোঃ রায়হান ইসলাম[ রাববী ]

“এমনও তো হয় কোনদিন
পৃথিবী বান্ধবহীন
তুমি যাও রেলব্রীজে একা-
ধূসর সন্ধ্যায় নামে ছায়া
নদীটিও স্থিরকায়া
বিজনে নিজের সাথে দেখা ! ”
-সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়

>*প্রিয় মা*<<
:মা কথাটি যদিও ছোট
:ডাকতে লাগে বড় মিষ্টি,
:মা আমার মহান প্রভু
:সবার সেরা সৃষ্টি।
:সবাই যখন রাগে ফাটে
:মায়ের মুখে তখন হাসি,
:স্নেহময়ী এমন মাকে
:তাইতো ভালবাসি|

★দুঃখ নামের স্টেশনে থামলো জীবন গাড়ী★
★আজও খুজে পেলাম না কোথায় সুখের বাড়ী★
★বিধাতার কলমে বুঝি ছিল না কোন কালি★
★সুখ নামের জায়গাটা তাই পড়ে আছে যে খালি★

অনেক অপেক্ষার পরে আমি
পেলাম তোমার ভালোবাসা,
আর পেলাম আমি বাঁচার মানে
পেলাম জীবনের আশা ।

অবাক পৃথিবী ,
বারে বারে আমি ,
তোমাকেই খুঁজে ফিরেছি !
হাসি কান্নায় ,
যত ভাবনায় ,
আমি তোমাকেই শুধু চেয়েছি !!

bangla kobita sms shayari

আকাশে ভাসে মেঘ, মেঘে ভাসে বৃষ্টি ।
আকাশ আছে বলেই মেঘের হয়েছে সৃষ্টি ।
আকাশ পেতেছে বুক,শুন্য যে তার দেহ,
মেঘ ছাড়া সে দেহেতে ভাসবে না আর কেহ ।…

আজ হঠাৎ করে বৃষ্টি এল,
ভিজে গেল মন;
ভিজে গেল স্বপ্নগুলো,
ভিজল চোখের কোণ;
বৃষ্টি ভেজা স্নিগ্ধ আকাশ,
স্মৃতি কাড়ে মন;
হোকনা বৃষ্টি অন্তরেতে,
হোকনা সারাক্ষণ….

আজ হলো সেই দিন, সুখ পেলাম যত!
আজ হলো সেই দিন, বুকে পেলাম ক্ষত!
আজকের এই দিনে, আপন হলো পর!
আজকের এই দিনে, ভাঙলো এই অন্তর!

আতাই পাতাই
দুইটি বুড়ো
দেখতে পেল
পাহার চুড়ো
তরতরিয়ে
উঠতে গিয়ে
পিছলে পড়ে
হাড্ডি গুড়ো..

আমাদের পড়ালেখা*চলে বাঁকে~বাঁকে*
পরীক্ষার~আগে~ তাই~চাপ~বেশী থাকে*
পার~হয়ে যায়~দিন~পার হয়~রাত*
বিশাল সিলেবাস~দেখে মাথায়~দি ~হাত……..

আমার একলা চলার পথে , একফালি চাঁদ হাসে !
আমার একলা মনের ঘরে , মনের মানুষ আসে !!
ও আমার একটুখানি চাওয়া , তাকেই ভালোবেসে !
আমার অনেকখানি পাওয়া , যখন দাঁড়ায় পাশে !!
আমার চেতন মনের ভুলে , অবচেতন হাসে !
যখন আমার আঁধার ঘরে , একফালি চাঁদ আসে !!

আমার বাতাস হতে ইচ্ছে হয়;
তোমার নির্নীয়মান নিষিদ্ধ স্থানগুলো
হাতড়ে হাতড়ে দেখতে ইচ্ছে হয়।
কোন এক নিশুতি রাতে
তোমার নিষিদ্ধ নগরীর নিষিদ্ধ নদীতে
নিষেধ ভেঙে ডুবতে ইচ্ছে হয়।।

আমি বাস্তবে বাঁচি না কারন তুই আমার নয়…
আমি স্বপ্নে বাঁচি না কারন সেটা সত্যি নয়…
অতীতের স্ম্ তি আকড়ে ধরে বঁ।চতে চাই…
পুরোনো স্মৃতি কিছু ভালোবাসার কথা…
ভালোবাসিস বলেছিলিস তুই ও…
হয়তো আজ সব গেছিস ভুলে,সময় তোর নাইকো।

আমি বোকা তাই, তুমি দিয়েছো ধোকা

তুমি চালাক তাই আমি দিয়েছি তালাক।

আমি স্বপ্নহীন,,
আমি রাত্রিদিন..
ছন্দ ছাড়া আমি,,
আমি বৃষ্টিধারা..
আমি অগোছালো,,
আধাঁর-কালো আমি..
আমি অবিরত,,
তাই আমার পৃথিবী
শুধু আমার ই মত………….

আলু পটল তরকারি,মেয়েদের মন সরকারি।
পিয়াজ রসুন আদা,মেয়েরা সব গাধা।
হাড়ি পাতিল কলস,মেয়েরা সব অলস।
জল বাতাশ আলো,ছেলেরা সব ভালো।

বাংলা প্রেমের কবিতা এসএমএস

আলতো শীতের রোদ্দুরে তুই থাক না আমার সাথে,
উদাস হাওয়ার মন কেমনে দুহাত আমার হাতে ll
বিকেল এলেই তোর স্বপ্নে কবিতারা করে ভিড় l
সন্ধ্যে নামে , তুই পাশাপাশি , মনপাখি ভোলে নীড় ll
রাত নেমে আসে , চোখে ঘুমঘোর , স্বপ্নেরা আসে ওই !
চোখ মেলে খুঁজি , তোর মায়া চোখ , আসিস না কেন তুই ?

ইচ্ছে হল লিখতে,লিখে ফেললাম তাই
কি জন্যে লিখি তার কোনো জবাব নাই,
পড় যদি তুমি তবে একটাই কাজ কর
একটুখানি বোলো আমায় লিখছি কেমনতর!!

ওরে ও নীল পাখি,,
কি যাদু করলো রে তোর আঁখি।
পাগল বলরে তুই আমায়,
লুকিয়ে আছিস বল না কোথায়?
বানিয়েছি তোর জন্যে আমি
ছোট্ট সোনার খাঁচা,
আয়নারে খাঁচায় তুই
আমায় একটু বাঁচা !!

কাজল কালো আঁখি তোমার, চাঁদের মতো মুখ,
না দেখলে বন্ধু তোমায় লাগে না যে সুখ,
যেখানে আছো যেভা আছো ভালো থেকো, মন
চাইলে খবর নিও আছি আমি কেমন ।

কাঠফাটা চাঁদ-জোছনা আমার খাটের নীচে,
আধফাটা তার ঠোঁটের কোণে অশ্রূ ঝরে…
টিমটিমে মোমবাতিটার সঙ্গে মশাল
ঝড়ের সঙ্গে এক ঘরেতেই বসত করে..
শুকনো পাতায় গুছিয়ে লেখা পান্ডুলিপি,
ঝড়ের বুকে আবার ফিরে ঝাঁপিয়ে পড়ে…

কারো মুখে মিষ্টি হাসি,কারো চোখে জল
এ কেমন ভালবাসা,বন্ধু তোরা বল!
কেউ করে পাগলামি,কেউ করে “ফান”;
কারো মুখে হারানোর হাসি,কারো মুখে গান!

কিছু কষ্টো আছে জমা এই মনের ঘরে ,
কিছুটা জল চোখটা বেয়ে অঝোর ধারায় ঝড়ে ।
চোখটা মুছে হঠাৎ আবার মিথ্যে করে হাসি ,
হাসতে হাসতে খুঁজতে থাকি কেন ভালোবাসি ?

কবিতা, তোকে দিলাম ছুটি ,
অকবি কবির হাতে !
কবিতা, তোকে ডাকবো না আর
থাকব না তোর সাথে !!
যখনি খুলেছি মনের দুয়ার ,
যখনি ডেকেছি তোকে !
তখনি দেখেছি মুক্তো জমেছে ,
আমার এ দুই চোখে !!

চোখে আছে কাজল কানে আছে দুল,
ঠোট যেন রক্তে রাঙা ফুল,
চোখ একটু ছোট মুখে মিষ্টি হাসি,
এমন একতা মেয়েকে আমি সত্যি ভালোবাসি।

প্রেমের ছন্দ কবিতা

চোখের নিচে কিসের এ দাগ
রাত্রি জাগা কালি
বুকের ভিতর জমেছে স্তর
পলিবিহীন বালি ?
ঠোঁটের শস্য কীটপতঙ্গ
খায় কি কুরে কুরে
স্বপ্নগুলো আটকে আছে
শীর্ণ নদীর চরে ।

চঞ্চল মন বড় অবুঝ মন,
যেন আকাশের রং বদলায় সারাক্ষণ।
পাওয়া না পাওয়ার দোলায় দোলে,
জীবন চলে যায় মরণের কোলে।

ছোট ছোট সুপারি, কচি কচি পান,
এই যুগের মেয়েরা বড় শয়তান,
মেয়েরা প্রজাপতির মত ফুলের মধু খায়,
১ফুলকে নষ্ট করে অন্য ফুলে যায়।:::f:::

জানি তুই আমাকে
অনেক ভালবাসিস,
তবে কেন এমন করে
চুপটি করে থাকিস !
পাগল বন্ধু মনে করে
যখন এত ভালবাসিস,
একবার তো আমায় তুই
ডেকে বলতে পারিস !

জানের চেয়ে প্রিয় তুমি,প্রাণের চেয়ে আপন,
মনের মাঝে হৃদয়ে তুমি আমার শত স্বপন
তুমি শত আশা আমার,তুমিই ভালোবাসা,
প্রেমে পাগল আমার তুমি নেশা সর্বনাশা॥

জীবনের পথচলা ; মাঝে ভুলভ্রান্তি ,
থেমো নাকো বন্ধু ; আসে যদি ক্লান্তি l
শেষে জেনো আছে জয় জীবনের বন্দনা ,
সাথে থাক এইটুকু , না হারার সান্ত্বনা ll

জীবনটা বসন্তকাল,
ফুলে ফুলে ভরে যায়।
সুখটা গাছের পাতা,
হঠাৎ যেন ঝরে যায়.
দুঃখটা বিশাল আকাশ,
সবসময় রয়ে যায়।
স্বপ্নটা পাখির মত,
হঠাৎ করেই উড়ে যায়…

ঝরে গেলো ভালোবাসা, নিভে গেলো বাতি,
প্রজাপতি ধরতে গিয়ে, হারালাম সাথী,
ফুল কে হাতে রেখে কোরো না নষ্ট,
কাউকে ভালোবেসে দিওনা কষ্ট,

যত দূরেই যাও না কেন আছি তোমার পাশে…
যেমন করে শিশিরকণা জড়িয়ে থাকে ঘাসে,
কাছে আমায় পাবে তখন হাত বাড়াবে যেই
যদি না পাও জানবে সেদিন আমি আর নেই…

যদিও পৃথীবিটা স্বপ্নের ভুবন,
তবুও মানুষের সব আশা হয়না পূরন,
স্বার্থপর দুনিয়াতে কেউ নয় আপন,
সময়ের সাথে হারিয়ে যায় কত প্রিয়জন..

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *